ক্যানসাস প্রবাসের রাজনীতি

যুক্তরাষ্ট্রে আগাম ভোট শুরু, শরিফুলের জীবনে প্রথম ভোট!

dsc_0001
বহুল প্রত্যাশিত যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটযুদ্ধ শুরু। এটি হলো আগাম ভোট। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যানসাস রাজ্যের উচিটা শহরে ১৫টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে। আগামী ৬ নভেম্বর পযন্ত এ আগাম ভোট চলবে। ৮ নভেম্বর ভোট প্রদানের শেষ দিন। সবাই শেষ দিনের অপেক্ষায়। ভোটাররা তাঁদের পছন্দের – প্রেসিডেন্ট, সিনেটর, কংগ্রেসম্যান, মেয়রসহ নানা পদের প্রার্থীদের ভোট দিয়ে যাচ্ছেন।

সুনশান নীরবতা । শুধু মটরকার কেন্দ্রে ঢোকার আওয়াজ । টু শব্দ নেই। জনসংখ্যানুপাতে ভোটারদের লাইনও ছোট। সারিবদ্ধভাবে একে-একে ভোট দিয়ে বেরিয়ে যেতে দেখা যায়। ভোট কেন্দ্রে ঢোকার সময় চোখে পড়ে ভোট চলছে এখানে “ভোট ফর হিয়ার” লেখা ব্যানার। কেন্দ্রের দরজায় লেখা রয়েছে শুধুমাত্র যাদের ভোটের আইডি আছে তাঁদের অবস্থান ”ভোটার আইডি রিকোয়ার্ড”। গত ২নভেম্বর একাধিক ভোট কেন্দ্র ঘুরে এ চিত্র দেখা যায় ।

মো. শরিফুল ইসলাম । জীবনে এ প্রথম ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। তাও আমেরিকায়। ভোট দেয়ার পর তার অনুভুতি ছিল এ রকম- জানি হারমু এ স্টেটে (রাজ্যে); তবুও মনের শান্তনা- যাকে খুশি তাঁকে ভোটটা দিলাম। গত ২নভেম্বর ক্যানসাস রাজ্যের উচিটা শহরের একটি গীর্জায় (Reformation Lutheran) ভোট দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। তাঁর বাড়ী নরসিংদির পলাশ উপজেলার দক্ষিণ পারুলিয়া গ্রামে। ২০১২ সালে আমেরিকায় এসেছেন। দেশে থাকা অবস্থায় বয়স আঠার বছর ছুঁই-ছুঁই। তাই দেশে ভোট দিতে পারেননি।

ভোটার ক্লায়ন্স । খাঁটি আমেরিকান। ৭৫ বছর বয়স। জীবনে একবার ভোট দিয়েছিলেন । প্রেসিডেন্ট জন এফ কেনেডিকে। তার প্রিয় প্রেসিডেন্ট আততায়ীর হাতে নিহত হওয়ার পর আর কোন প্রার্থীকে তিনি ভোট দেননি বলে জানান। ১৯৪১ সালে ক্যানসাসের মেজোরী শহরে জন্ম নেন তিনি। বাবা পরিবার নিয়ে চাকরি খুঁজতে এসে ১৯৬৩ সালে উচিটা শহরে বসতি স্থাপন করেন। প্রার্থীদের ক্ষেত্রে তাঁর অভিমত- সবার চরিত্র এক। আমার আর ভাল লাগে না। জীবন তো শেষের দিকে; তবে আমেরিকা বেঁচে থাক সবার মাঝে এ কামনা করি।

যুক্তরাষ্ট্রে ভোট যুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে । এটি হলো আগাম ভোট। ভোটের নিদিষ্ট তারিখ ৮ নভেম্বর । কোন কোন রাজ্যে এর এক সপ্তাহ আগে (১নভেম্বর) থেকে আগাম ভোট শুরু হয়ে গেছে। এ ভোটের মূল উদ্দেশ্য হলো- হাজারো ব্যস্ততার মধ্যেও কোন ভোটার যেন ভোট দেয়া থেকে ছিঁটকে না পড়েন। ভোটের দিন দীর্ঘ লাইনে না পড়া । ক্যানসাস রাজ্যে ১ নভেম্বর থেকে আগাম ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে গেছে। দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পযন্ত ভোট গ্রহণ চলে। এ ভোট গ্রহণ ৬ নভেম্বর পযন্ত চলবে। ভোটাররা চাইলে যে যার পছন্দসই প্রার্থীকে ভোট দিতে পারেন। এ জন্য সপ্তাহ আগে ভোটারদের ভোট সংক্রান্ত তথ্য ডাক /ইমেইল পৌঁছে গেছে। ইতোমধ্যে ভোটারদের নিরাপদ ভোট প্রদানে সহায়তা করতে প্রতিটি শহরের মিউনিসিপ্যাল কপোরেশন (সেজউইক কাউন্টি) থেকে ভোট কেন্দ্রের নাম পত্রিকা /মেইলে ভোটারদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যানসাস রাজ্য আদিকাল থেকে রক্ষণশীল (কনজারভেটিভ এরিয়া) প্রার্থী জয়ী হন। এ রাজ্যের উচিটা শহরের লোকসংখ্যা ৩ লক্ষ ৮২ হাজার ৩৬৮। ভোটার প্রায় ৪৫হাজার । এ শহরে উড়োজাহাজ (এয়ারক্রাফট ) তৈরির কারখানা রয়েছে। তাই এ শহরকে ‌”দি এয়ার ক্যাপিটাল অব দি ওয়ার্ল্ড” বলা হয়ে থাকে।

আপনার মন্তব্য জানান