কানাডা

রেজিনায় কঠিন চীবরদান

এই প্রথমবারের মতো কানাডার সাস্কাচেওয়ান প্রদেশের রাজধানী রেজিনায় বসবাসরত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা বাপক-উৎ​সাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে কঠিন চীবরদান উদ্‌যাপন করেছেন। ফুলে-ফুলে সিক্ত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কঠিন চীবরদান অনুষ্ঠান। ৬ নভেম্বর রোববার সকাল থেকে ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে-সঙ্গে ফুলে-ফুলে সাজিয়ে বৌদ্দ পূজা সাজানোর মধ্যদিয়ে শুরু হয় পূজার আনুষ্ঠানিকতা। রেজিনার পাশের শহর মোসজো থেকে বাংলাদেশিদের পাশাপাশি মিয়ানমারের কারেন ও আরাকানি বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরাও এতে অংশ নেন।

এ সময় রেজিনায় বসবাসরত ছোট-ছোট বাচ্চারা বৌদ্ধ পূজার নানা প্রসাদ দিয়ে বৌদ্ধকে প্রণাম করেন। বাংলাদেশের পার্বত্য-অঞ্চলের মেয়েরা ঐতিহ্যবাহী পিনন খাদি কাপড় পরে অনুষ্ঠান আলোকিত করেন। ধর্মাঞ্চলী মেডিটেশন সেন্টারের প্রধান ভিক্ষু দেবাংসী ভান্তে অনুষ্ঠানে আগত সকল ধর্মানুসারীদের সূত্র ও পঞ্চশীল প্রদান করেন। অন্যদিকে আগত ভক্তরা ভিক্ষু দেবাংসী ভান্তেকে পিণ্ড দান করেন। এরপর ভান্তে সবাইকে মেডিটেশনে আহ্বান করেন। এতে তিনি ছোট-বড় সকলের অস্থির চিত্তকে দমন করে স্থির করার প্রতিজ্ঞা করেন।
শেষে পৃথিবীর সকল প্রাণীর সুখ-শান্তি-সমৃদ্ধির কামনা করে অনুষ্ঠানের ইতি টানা হয়।

আপনার মন্তব্য জানান