প্রবাসের রাজনীতি

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের আগে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্ধারিত ভাষণের আগে বাইরে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। ভাষণের ঘণ্টাখানেক আগে বুধবার সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের বাইরে একশ গজের মধ্যে সমাবেশ দুটি থেকে পাল্টাপাল্টি স্লোগান দেওয়া হলেও অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি। আওয়ামী লীগের সমাবেশে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে মন্তব্য করে এ ‘অগ্রযাত্রায় বাধা সৃষ্টিকারী’ বিএনপি-জামায়াতকে প্রতিহত করার ঘোষণা দেন বক্তারা। ‘বিএনপির দুই গুণ-লুটপাট আর খুন’ ও ‘যেখানে বিএনপি-সেখানেই প্রতিরোধ’সহ বিভিন্ন স্লোগান দেওয়া হয় সেখানে।

যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মনিরুল ইসলাম, নিউ ইংল্যান্ড শাখার সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ চৌধুরী, সেক্রেটারি ইউসুফ ইকবাল, ওয়াশিংটন মেট্রোর সভাপতি সাদেক খান, সেক্রেটারি মাহমুদুন্নবী বাকি, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের আকতার হোসেন, এম এ সালাম, এম এ জলিল, আব্দুস সামাদ আজাদ, আইরিন পারভিন, আব্দুল হাসিব মামুন, আব্দুর রহিম বাদশা, মাহবুবুর রহমান টুকু, মমতাজ শাহানাজ, মোর্শেদা জামান, আশরাফুজ্জামান ও তৈয়বুর রহমান টনি আওয়ামী লীগের সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে ছিলেন কন্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন, তারেক পরিষদ আন্তর্জাতিক কমিটির চেয়ারপার্সন আকতার হোসেন বাদল, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির গিয়াস আহমেদ, অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, সোলায়মান ভুইয়া, মোস্তফা কামাল পাশা বাবুল, জসীম ভুইয়া, মাহফুজুল মাওলা নান্নু, এম এ বাতিন, গোলাম ফারুক শাহীন, মাওলানা অলিউল্লাহ মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, সাঈদুর রহমান, পারভেজ সাজ্জাদ, মতিউর রহমান লিটু, আবু তাহের, সোহরাব হোসেন, খলকু রহমান, মোহাম্মদ সাদী মিন্টু, আজাদ বাকির, নাসিম আহমেদ, জাফর তালুকদার, গোলাম হোসেন, ছাত্রদলের মাজহারুল ইসলাম জনি, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বাবর উদ্দিন।

পৃথক ব্যানারে সমাবেশে অংশ নেন ওয়াশিংটন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ জে এম হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তুহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হক কামাল, মোখলেছুর রহমান লিটন, তৈয়্যবুর রহমান, মনির হোসেন, মো. আল আমিন, সোহেল আহমেদ, রাসেল আহমেদ, কামাল পাশা, ফরহাদ আজিজ, জিন্নাত উল্লাহ, মো. আতিকুর রহমান, নূর মোহাম্মদ লিটন, জামাল উদ্দিন, আবুল কাসেম, সানা উল্লাহ, মিয়া হাসেম, কবির আজিজ, ইসমাঈল প্রধান, নাসির উদ্দিন, ফিরোজ আলম, হেলাল আহমেদ, জীবন চৌধুরী, মনির হোসেন ও রেজাউল করীম।

বিএনপির দুই পক্ষই একসঙ্গে ‘হঠাও হাসিনা বাঁচাও দেশ-খালেদা জিয়ার নির্দেশ’, ‘নো জাস্টিস-নো পিস’, ‘খালেদা-তারেক ভয় নাই-রাজপথ ছাড়ি নাই’, ‘এই মুহূর্তে দরকার-তত্ত্বাবধায়ক সরকার’, ‘জেল-জুলুম হুলিয়া নিতে হবে তুলিয়া’, ‘বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের নিযার্তন বন্ধ কর’, ‘ডাউন ডাউন হাসিনা-গো ব্যাক হাসিনা’ স্লোগান দেন।

আপনার মন্তব্য জানান