কানাডা

কানাডায় এইডস মোকাবিলার সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বৃহস্পতিবার কানাডার মন্ট্রিলে পৌঁছার পর হোটেল ওমনি রয়েলে তাঁকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান অটোয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মিজানুর রহমান ও তাঁর স্ত্রী l

এইডস মোকাবিলায় মন্ট্রিলে ফিফথ রিপ্লেনিশমেন্ট কনফারেন্স অব দ্য গ্লোবাল ফান্ডে (জিএফ) যোগ দিতে কানাডা পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দুদিনব্যাপী এ সম্মেলন গতকাল শুক্রবার শুরু হয়েছে।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর আমন্ত্রণে চার দিনের সরকারি সফরে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পিয়েরে এলিয়েট ট্রুডো ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে অবতরণ করে প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের বহনকারী এয়ার কানাডার ফ্লাইট। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান অটোয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মিজানুর রহমান। এ সময় কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা শেষে শেখ হাসিনাকে মোটর শোভাযাত্রাসহ মন্ট্রিলের হোটেল ওমনি রয়েলে নিয়ে যাওয়া হয়। কানাডা সফরকালে তিনি এই হোটেলেই অবস্থান করবেন।

গতকাল মন্ট্রিলে হায়াত রিজেন্সিতে কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ শেষে অন্যান্য রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সঙ্গে সম্মেলনের মিনিস্ট্রিয়াল প্লিজিং মোমেন্ট ও সংবর্ধনায় যোগ দেওয়ার কথা ছিল শেখ হাসিনার। এ ছাড়া হায়াত রিজেন্সি মন্ট্রিলে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর আমন্ত্রণে আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে অংশ নেওয়া এবং ট্রুডোর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করার কথা ছিল শেখ হাসিনার। এ সময় ট্রুডোর হাতে ‘ফ্রেন্ডস অব লিবারেশন ওয়ার অনার’ পুরস্কার হস্তান্তর করার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে দ্ব্যর্থহীন সমর্থন ও অবদানের জন্য কানাডার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডোকে (জাস্টিন ট্রুডোর বাবা) মরণোত্তর এই পুরস্কার দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।

কানাডা সফরকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অন্যান্যের মধ্যে আছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। এর আগে লন্ডনে ২২ ঘণ্টা যাত্রাবিরতির পর বৃহস্পতিবার মন্ট্রিলের উদ্দেশে লন্ডন ছাড়েন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭১তম অধিবেশনে যোগদানের জন্য কাল রোববার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের উদ্দেশে মন্ট্রিল ছাড়বেন।

আপনার মন্তব্য জানান